আজ পবিত্র শবে মেরাজ বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক স্থাপন এবং তার পরিণতিআগামীকাল থেকে শুরু হচ্ছে পবিত্র হজ ও ওমরাহ পরিষেবা সম্মেলন জাতিসংঘের সদর দপ্তরে আরবি ভাষা দিবস উদযাপিতসদকা গুনাহ মুছে দেয়
No icon

বাবা জীবিত অবস্থায় ছেলে-মেয়েদের সমান সম্পত্তি দেওয়া কি জায়েজ?

কেউ যখন মৃত্যু বরণ করে, তখন তার সম্পদ মিরাস বা পরিত্যাক্ত সম্পদ গণ্য হয় এবং মিরাস বণ্টনের নীতিমালা অনুযায়ী ওই সম্পদ বণ্টন করতে হয়।জীবিত থাকা অবস্থায় একজন মানুষ যেমন তার মালিকানাধীন সম্পদ নিজের ইচ্ছা অনুযায়ী খরচ করতে পারে, কাউকে উপহারও দিতে পারে। এক্ষেত্রে কোনো বিধিনিষেধ নেই।কেউ যদি জীবিত থাকা অবস্থায় তার সম্পদ নিজের ছেলে ও মেয়েদের মধ্যে সমানভাবে ভাগ করে দেয়, তাহলে এটা জায়েজ, বরং এটাই উত্তম। জীবিত অবস্থায় বন্টন করলে ছেলে-মেয়ে নির্বিশেষে সব সন্তানকে সমান দেয়াই উত্তম। যদিও যৌক্তিক কারণে কমবেশি করা জায়েজ আছে।যৌক্তিক কারণ ছাড়া সন্তানদের মধ্যে একজনকে বিশেষভাবে বেশি সম্পত্তি দান করা বা বহুমূল্য উপহার দেওয়া নাজায়েজ। রাসুল (সা.) এ রকম অসমতাকে জুলুম বলে অভিহিত করেছেন এবং এ সব ব্যাপারে আল্লাহকে ভয় করতে বলেছেন। (সহিহ বুখারি, সহিহ মুসলিম)

কেউ মারা যাওয়ার পর তার কাফন-দাফনের যাবতীয় খরচ, ঋণ, স্ত্রীদের বাকি দেনমোহর ইত্যাদি মেটানোর পর অবশিষ্ট সম্পত্তি মিরাস গণ্য হয়। মৃত ব্যক্তির যদি ছেলে ও মেয়ে থাকে, তাহলে মিরাসের সম্পদ ছেলে বা ছেলেরা মেয়ে বা মেয়েদের চেয়ে দ্বিগুন পায়, মেয়েরা ছেলেদের অর্ধেক পায়। মৃত ব্যক্তি শুধু একটি কন্যা সন্তান রেখে গেলে সে তার সম্পত্তির অর্ধেক পায়। একাধিক কন্যা সন্তান থাকলে তারা তার সম্পত্তির দুই তৃতীয়াংশ পায়।