আজ পবিত্র শবে মেরাজ বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক স্থাপন এবং তার পরিণতিআগামীকাল থেকে শুরু হচ্ছে পবিত্র হজ ও ওমরাহ পরিষেবা সম্মেলন জাতিসংঘের সদর দপ্তরে আরবি ভাষা দিবস উদযাপিতসদকা গুনাহ মুছে দেয়
No icon

নারীদের যে পরিমাণ চুল অনাবৃত থাকলে নামাজ নষ্ট হবে

অনেকের মধ্যে একটি ভুল ধারণা আছে যে নামাজের সময় নারীদের এক/দুটি চুল বের হয়ে থাকলেই নামাজ নষ্ট হয়ে যাবে। এ ধারণা সঠিক নয়। নামাজের সময় এক দুটি চুল বের হয়ে থাকলে নামাজের ক্ষতি হয় না।নামাজে যে অঙ্গগুলো ঢাকা ফরজ সে অঙ্গগুলোর কোনোটির চার ভাগের এক ভাগ বা এর বেশি যদি তিন তাসবিহ পরিমাণ সময় খোলা থাকে, তাহলে নামাজ ভেঙে যাবে। নারীদের সব চুল মিলে এক অঙ্গ গণ্য হয়। তাই নামাজের সময় মাথার সব চুলের এক চতুর্থাংশ পরিমাণ বা তার বেশি যদি তিনবার সুবহানা রব্বিয়াল আযীম বলা পরিমাণ সময় বের হয়ে থাকে, তাহলে নামাজ নষ্ট হবে, অন্যথায় নয়। তবে পুরো মাথা এবং সব চুলই যেহেতু ঢেকে রাখা ফরজ, তাই পুরো মাথা পূর্ণ সতর্কতার সাথে ঢেকে রাখা উচিত যেন চুলের কোনো অংশ অনাবৃত না থাকে।নামাজের সময় নারীদের মুখমণ্ডল, কবজি পর্যন্ত দুই হাত ও টাখনু পর্যন্ত পা ছাড়া পূর্ণ শরীর ঢেকে রাখা ফরজ। পুরুষের নাভির নিচ থেকে হাঁটুর নিচ পর্যন্ত ঢেকে রাখা ফরজ। অন্যান্য অঙ্গ অনাবৃত থাকলে নামাজ হয়ে যাবে, তবে বিনা কারণে মাথা, পেট-পিঠ, হাতের কনুই খোলা রেখে নামাজ পড়া পুরুষের জন্য মাকরুহ।